সিইএস ২০১৯ এর সেরা আইওটি যুক্ত হোম গ্যাজেট

আইওটি যার মানে ইন্টারনেট অব থিংস। যার বিস্তারিত অর্থ দাড়ায় আমাদের প্রতিনিয়ত ব্যবহৃত জিনিসগুলো যুক্ত থাকবে ইন্টারনেটের সাথে আর এসবের ব্যবহারকারীদের তথ্যও জমা থাকবে ইন্টারনেটে এবং ব্যবহারকারীর সকল তথ্যকে কাজে লাগিয়ে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নিবে এই গ্যাজেট কিংবা জিনিসগুলো। এবারের সিইএস ২০১৯ যা অনুষ্ঠিত হয় লাস ভেগাসে, সেখানেও ছিল এই আইওটি পণ্যের ছড়াছড়ি যা কিনা আমরা আমাদের নিত্যনৈমিত্তিক কাজের জন্য ব্যবহার করতে পারি। এবারের আয়োজনে থাকছে সেইসব গ্যাজেট নিয়ে কিছু আলোচনা, যা আমরা অনেকগুলো গ্যাজেটের মধ্য থেকে বাছাই করেছি। চলুন জানি সেসব গ্যাজেট সম্পর্কে,

লেনেভো স্মার্ট ঘড়িঃ 

‘লেনেভো স্মার্ট ঘড়ি; source: 9to5google.com’

স্মার্ট ডিসপ্লের সফলতা অনুযায়ী এবছর সিইএস ২০১৯ এ লেনেভো নিয়ে আসে গুগল অ্যাসিস্টেন্ট যুক্ত ঘড়ি যাকে লেনেভো নাম দিয়েছে স্মার্ট ঘড়ি। এতে রয়েছে ৪ ইঞ্চি আইপিএস ডিসপ্লে যার কাজ আপনার সকালের কিংবা অন্য সময়ের ঘুম ভাঙ্গানো তাও কিনা আবার আলোর হ্রাস বৃদ্ধির মাধ্যমে। যা কিনা সম্ভব হয় ফিলিপস হিউ স্মার্ট বাল্বের মাধ্যমেও। যা আপনার ঘুমের রুটিন মেনে চলে এবং আপনাকে সে অনুযায়ী ঘুম থেকে ডেকে তোলে। এটি খুব সুন্দরভাবে দারুণ মানের গানের সুরের দ্বারা আপনাকে ঘুম থেকে ডেকে তুলবে এবং আপনার মোবাইলে কল দিয়েও আপনাকে ঘুম থেকে জাগিয়ে তুলতে সক্ষম। গুগল অ্যাসিস্টেন্টের মত এতেও ‘হে গুগল’ এবং ‘ওকে গুগল’ বলেই আপনি এলার্ম সেট করতে পারবেন। আর এটিকে বিছানায় রেখে বা বিছানার পাশে রেখে শুনতে পারবেন আপনার পছন্দের গান। আর চার্জ দেয়ার জন্য এতে রয়েছে চার্জিং পোর্ট এবং ডাটা ক্যাবল ব্যবস্থা। আর গুগল ক্রোমকাস্টের সাহায্যে এটি আপনার টিভিতে কোনো পোগ্রাম শুরু বা চালু করতে পারবে। এটির দাম পড়বে ৭৯.৯৯ ডলার এবং এবছরের মার্চ বা এপ্রিল নাগাদ বাজারে আসতে যাচ্ছে এটি।

মুই স্মার্ট ডিসপ্লেঃ

‘মুই স্মার্ট ডিসপ্লে; source: cnet3.cbsistatic.com’

সিইএস ২০১৯ এ যে বস্তুটি দেখতে একটু কদাকার ছিল সেটি হচ্ছে এক টুকরা কাঠ যা কিনা প্রযুক্তির সাথে যুক্ত। কাঠের তৈরি এই বস্তুটি মূলত স্পর্শকাতর ব্যবস্থা যুক্ত যার ফলে এতে স্পর্শ করার ফলে এটি ডিসপ্লের মত কাজ করতে শুরু করে। এটির দ্বারা আপনই জানতে পারবেন ঘড়ি, আবহাওয়ার পূর্বাভাস, বাসায় ব্যবহৃত লাইটের আলোর পরিমাণ/মাত্রা, আপনাকে পাঠানো টেক্সট ম্যাসেজ এবং জানাবে আপনার কাছে আসা যেকোনো ভয়েস মেইলও। এতেও যুক্ত আছে গুগল অ্যাসিস্টেন্ট ব্যবস্থা যার মাধ্যমে সকল কিছু নিয়ন্ত্রণ করা হয় এবং এর মাধ্যমেই আপনই সব কিছুর আপডেট জানতে পারবেন। এই কাঠের টুকরোটি বাজারে আসতে যাচ্ছে এই বছরের সেপ্টেম্বরে এবং দাম পড়বে ১০০০ ডলার।

ক্যাপস্টোনযুক্ত হোম স্মার্ট আয়নাঃ

‘স্মার্ট হোম আয়না; source: smallseotools.com’

এবছর সিইএস ২০১৯ এ ছিল এরকম এক প্রকার আকর্ষণ যা কিনা আয়নার দ্বারা সম্ভব, অর্থাৎ এমন এক প্রকার আয়না যা কিনা স্পর্শ করা যায় তথা টাচ স্ক্রীনের সুবিধাযুক্ত এবং কণ্ঠস্বরযুক্ত। এতেও যুক্ত আছে গুগল অ্যাসিস্টেন্ট ব্যবস্থা যা দ্বারাই সবকিছু নিয়ন্ত্রিত হয়ে থাকে। যা দ্বারা আপনি প্রতিদিনকার আবহাওয়ার পূর্বাভাস, ট্রাফিক আপডেট এবং ইউটিউবের স্ট্রিমিং দেখতে পারবেন। তাছাড়া আপনি সোশ্যাল মিডিয়ার নানান আপডেট জানতে, দেখতে পারবেন এবং চালাতে/ব্যবহার করতে পারবেন ডাউনলোড করা অ্যাপ্লিকেশনগুলো। তাছাড়া এতে যুক্ত আছে গুগল প্লে স্টোর ব্যবস্থা যাতে করে আপনই যেকোনো অ্যাপ ডাউনলোড করে নিতে পারেন এবং যুক্ত আছে গুগল ড্রাইভ ব্যবস্থাও। আবার আপনই টাচ করে মেইলও পাঠাতে পারবেন এই আয়নার মাধ্যমে। এটির দৈর্ঘ্য হতে পারে ১৯-২২ ইঞ্চির মত। তবে কবে নাগাদ এটি বাজারে আসবে এবং কত দাম হবে সে বিষয়ে কিছু জানানো হয়নি এখন পর্যন্ত।

ক্লিপসচ বার ৪৮ডব্লিউ সাউন্ডবারঃ

‘ক্লিপসচ সাউন্ডবার; source: cdn.vox-cdn.com’

এটি মূলত একটি সাউন্ডবক্স ব্যবস্থা যা দৈর্ঘ্যে ৪০ ইঞ্চি এবং প্রস্থে ৫৪ ইঞ্চি। যাতে রয়েছে গুগল অ্যাসিস্টেন্ট, আমাজন অ্যালেক্সা এবং অ্যাপেল এয়ার প্লে২। এটির ছোট সংস্করণ ৪০জি তে থাকছে শুধুমাত্র গুগল অ্যাসিস্টেন্ট ব্যবস্থা। দাম হবে ২৯৯ থেকে ১৫৯৯ ডলার। আর বাজারে আসবে মাস দুয়েক পরেই।

হাউজ অব মার্লি গেট টুগেদারঃ

‘হাউজ অব মার্লি গেত টুগেদার; source: cdn.vox-cdn.com’

এবারই প্রথম সিইএস ২০১৯ এ স্পীকার নিয়ে আসলো হাউজ অব মার্লি নামক কোম্পানিটি। এটিতে আছে ব্লুটুথ ব্যবস্থা এবং গুগল অ্যাসিস্টেন্ট ব্যবস্থা। এটি তৈরি করা হয়েছে অ্যালুমিনিয়াম ও কাঠ দ্বারা। এটিকেও ক্রোমকাস্ট ব্যবস্থা দ্বারা নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব এবং ইউএসবি পোর্ট বিদ্যমান যা দ্বারা আপনই আপনার মোবাইল ফোনকে চার্জ করতে। এবছরের আগষ্টে আসতে যাচ্ছে বাজারে এটি যার দাম পড়বে ১৯৯.৯৯ ডলার।

ইভ লাইট স্ট্রিপঃ

‘ইভ লাইট স্ট্রিপ; source: cdn.vox-cdn.com’

এটি একটি এলইডি লাইট স্ট্রিপ যা কিনা বাসাবাড়িতে আলোকসজ্জার জন্য ব্যবহার করা হয়। যা এবছরের সিইএস ২০১৯ এ আনা হয়েছে। এটি ২ মিটার লম্বা এবং এটিকে ভাঁজ করা যায় এবং ১৮০০ লুমেন্স ক্ষমতা সম্পন্ন। এটিকে আপনই আপনার বাড়ির যেকোনো স্থানে, আসবাবপত্রের সাথে ব্যবহার করতে পারেন। দাম পড়বে ৭৯ ডলার। আর এটিকে নিয়ন্ত্রণ করা যাবে অ্যাপল হোম ও সিরির সাহায্যে এবং আপনার আইফোনের সাথে এটিও রঙ পাল্টাবে।

রিং ডোরভিউ ক্যামঃ

‘রিং ডোরভিউ ক্যাম; source: cdn.vox-cdn.com’

এবারের সিইএস ২০১৯ এ ১৩ রকমের হোম সিকিউরিটি সিস্টেম ছিল আর তার মধ্যে এটিই সবথেকে ভালো এবং বেশি পরিচিতি পেয়েছে। এটি মূলত তারবিহীন একটি সংযোগ ব্যবস্থা যা ব্যাটারি দ্বারা চালিত হয়। এটি আপনার দরজার বাইরে ঘটা সব কিছু এইচডি ভিডিও আকারে ভিডিও করে আপনার মোবাইলে ফোনের রিং অ্যাপে পাঠায়। এটি এবছরের শেষ নাগাদ আমেরিকা ও ইউরোপের বাজারে আসবে এবং দাম পড়বে ১৯৯ ডলার।

আরলো সিকিউরিটি সিস্টেমঃ

‘আরলো সিকিউরিটি সিস্টেম; source: www.arlo.com’

আপনই যদি এমন একটি সিকিউরিটি সিস্টেমের কথা ভেবে থাকেন যা আপনার বাসাবাড়িকে নিরপত্তা দিবে তবে আরলো সিকিউরিটি সিস্টেম আপনার জন্য সর্বোত্তম চয়েজ হবে। এতে রয়েছে মাল্টি সেন্সর ব্যবস্থা যা কিনা জানালা খোলা-বন্ধ হওয়া, ধোঁয়া, গতি, কার্বন মনোক্সাইডের পরিমাণ, পানির পাইপের ফুটো, গ্যাসের পাইপের ফুটো থেকে আসা শব্দ, তাপমাত্রার পরিবর্তন ইত্যাদি নির্ণয় করতে সক্ষম। আর এসবের সকল আপডেট আপনার ফোনে পৌছে যাবে তৎক্ষণাৎ। এতে আরো আছে ভিডিও রেকর্ড করার ব্যবস্থা এবং সেগুলোকে অ্যাপের মাধ্যমে আপনার ফোনে পাঠাতে সক্ষম। আর এতে আরো আছে সাইরেন ব্যবস্থা যা কিনা যেকোনো ত্রুটি দেখলে সাথে সাথে আপনাকে সতর্ক করতে সক্ষম। যদিও এটির দাম এখনো প্রকাশ করা হয়নি এবং এবছরের মাঝামাঝি নাগাদ বাজারে আসতে যাচ্ছে।

এই ছিল এবছরে সিইএসে আসা সেরা কিছু গ্যাজেটের সম্পর্কে কিছু আলোচনা। বেছে নিতে পারেন আপনার পছন্দের যেকোন একটি গ্যাজেট। আর আগামীতে আসছে সিইএস নিয়ে আরো কিছু আয়োজন।

Image Source: media.threatpost.com

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.