তৈলাক্ত ত্বককে যেভাবে উজ্জ্বল ও মসৃণ করবেন

ত্বক তৈলাক্ত? খুব চিন্তিত আছেন তৈলাক্ত ত্বক নিয়ে? আর চিন্তা নেই। তৈলাক্ত ত্বককে উজ্জ্বল ও সুন্দর করার জন্য এবং ত্বকের তেলতেলে ভাব দূর করার জন্য রয়েছে কার্যকরী কিছু উপায়। এই উপায় ও টিপস গুলো অনুসরণ করে আপনিও পেতে পারেন উজ্জ্বল ও সুস্থ ত্বক। তবে একটি ব্যাপার মাথায় রাখবেন একদিনে বা রাতারাতি উজ্জ্বল ত্বক পাওয়া সম্ভব নয়। ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে হলে নিয়মিত রুপচর্চা করে যেতে হবে এবং কিছু অভ্যাস মাথায় রাখতে হবে। তৈলাক্ত ত্বকের সুস্থতায় চাই কয়েকটি অভ্যাস শিরোনামে ইতিপূর্বে একটি নিবন্ধ লিখেছি। আজ আলোচনা করবো যেসব উপায়ে তৈলাক্ত ত্বককে উজ্জ্বল ও সুন্দর করবেন তা সম্পর্কে।

মধু ও লেবুর মিশ্রণ

মধু, লেবু ও বেকিং সোডার মিশ্রণ ব্যবহার করে তৈলাক্ত ত্বক থেকে মুক্তি পেতে পারেন। এই মিশ্রণটি তৈরি করতে ১টি লেবুর অর্ধেক অংশ লাগবে, ২ টেবিল চামচ বেকিং সোডা ও ১ টেবিল চামচ মধু লাগবে। প্রথমে লেবু থেকে রস ঝরিয়ে নিন।

Photo: YouTube

তারপর প্রতিটি উপাদান একসঙ্গে ভালোভাবে মিশিয়ে নিন। তারপর ঠান্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে, ভালো ভাবে মুছে মুখে এই মিশ্রণটি লাগান। মিশ্রণটি মুখে লাগিয়ে শুকানোর আগ পর্যন্ত অপেক্ষা করতে থাকুন। শুকিয়ে গেলে তা কাপড় দিয়ে কুসুম গরম পানির সহযোগে তুলে ফেলুন।

এটি যেভাবে কাজ করে

লেবু মুখের ক্ষত ও দাগ দূর করে। লেবু মুখের উজ্জ্বলতা বাড়াতে সাহায্য করে। বেকিং সোডা চামড়ার স্তর ও ভাজ সারাতে কাজ করে এবং মধু উজ্জ্বলতা ও মসৃণতা প্রদান করে।

লেবু মিশ্রিত কুসুম গরম পানি পান

লেবু মিশ্রিত কুসুম গরম পানি তৈলাক্ত ত্বকের জন্য জাদুর মতো কাজ করে। এটি ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধিতে সহায়তা করে। এই পানীয়টি তৈরির জন্য দুই টেবিল চামচ লেবুর রস, এক গ্লাস পানি, এক টেবিল চামচ মধু লাগবে।

Photo: stylecraze.com

প্রথমে গরম পানির সাথে মধু ও লেবু মিশিয়ে প্রস্তুত করে ফেলুন উপযুক্ত পানীয়। এটি শুধুমাত্র খালি পেটে খেতে হবে এমন কোনো নিয়ম নেই, দিনের যেকোনো সময়ে খাওয়া যাবে।

এটি যেভাবে কাজ করে

লেবু এবং মধু মিশ্রিত পানি শরীরের বিষাক্ত পদার্থ দূর করে। এটি ত্বকের সকল বিষাক্ত পদার্থ, শরীরের বিষাক্ত পদার্থ দূর করতে সহায়তা করে এবং ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করে।

গ্রিন টি ও লেবু

গ্রীষ্মকালে ত্বকের তেলতেলে ভাব দূর করার জন্য গ্রিন টি ও লেবুর রস কার্যকরী। তৈরির জন্য এক টেবিল চামচ গ্রিন টি এবং ১/২ অংশ লেবু লাগবে। প্রথমে একটি কাপে গ্রিন টি নিয়ে তা ভালো করে গরম পানির সাথে মিশিয়ে নিন।

Photo: pinterest.com

মিশ্রণটি ঠান্ডা হলে এতে লেবুর রস মেশান। তারপর আইস ট্রেতে মিশ্রণটি ঢালুন এবং ফ্রিজে রেখে দিন। ঠান্ডা হলে একটি কাপড়ে কিউবকৃত টুকরো নিয়ে মুখে লাগান।

এটি যেভাবে কাজ করে

গ্রিন টিতে প্রচুর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট রয়েছে। এটি ত্বককে ক্ষতিকারক পদার্থ থেকে রক্ষা করে। গ্রিন টি ও মধু মিশ্রিত কিউবকৃত বরফের টুকরো আপনার ত্বকের ক্ষত পূরণ করতে, ব্রণ দূর করতে সহায়তা করবে এবং ত্বককে উজ্জ্বলতা প্রদান করবে।

হলুদ ও জাফরানের ফেসপ্যাক

হলুদ ও জাফরান দুটোই ত্বকের উজ্জ্বলতায় বিশেষ ভূমিকা রাখে। বিশেষ করে তৈলাক্ত ত্বকের উজ্জ্বলতায় জাফরান খুব কার্যকরী। এই ফেসপ্যাকটি তৈরি করতে লাগবে এক চিমটি জাফরান, এক টেবিল চামচ দই, এক টেবিল চামচ ময়দা, ১/২ চা চামচ হলুদ।

Photo: stylecraze.com

এটি প্রস্তুতের জন্য প্রথমে জাফরান ও দই মিশিয়ে সারা রাত রেখে দিন। পরবর্তী দিন দই ও জাফরানের সাথে হলুদ ও ময়দা ভালো করে মিশিয়ে নিন। মিশ্রণটি থকথকে ও সুন্দর হবে। হলুদ ও জাফরানের এই পেস্ট মুখে লাগান এবং শুকানোর পূর্ব পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। শুকিয়ে গেলে ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

এটি যেভাবে কাজ করে

এই ফেসপ্যাকটি তৈলাক্ত ত্বকের সৌন্দর্য বৃদ্ধিতে সবচেয়ে বেশি ভূমিকা রাখে। জাফরান ও হলুদ ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধিতে সহায়তা করে এবং দই ত্বকের ক্ষত ও সমস্যাগুলো দূর করতে দারুণ কার্যকরী ভূমিকা রাখে। এই ফেসপ্যাকটি আপনার ত্বককে করবে উজ্জ্বল ও মসৃণ। তাই এটি নিয়মিত ব্যবহার করতে পারেন।

চন্দনের গুঁড়ার ফেসপ্যাক

রুপচর্চায় চন্দনের গুঁড়া খুব গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি ও ত্বক ফর্সা করতে চন্দনের গুঁড়ার বিকল্প নেই। এটি তৈরি করতে এক টেবিল চামচ ময়দা, এক টেবিল চামচ চন্দনের গুঁড়া, এক টেবিল চামচ গোলাপজল অথবা নরমাল পানি লাগবে। এটি প্রস্তুত করতে সবগুলো উপকরণ একসাথে মিশিয়ে নিন। তারপর এটি মুখে লাগান।

Photo: WiseShe

শুকানোর পূর্ব পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। তারপর শুকিয়ে গেলে হালকা গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

এটি যেভাবে কাজ করে

ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধিতে চন্দনের গুঁড়া বহু আগে থেকে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। এটি রুপচর্চায় খুব ব্যবহৃত হয় এবং এটি সৌন্দর্য সচেতন নারীদের কাছে খুব জনপ্রিয়। ত্বকের কালো ভাব, দাগ, ক্ষত দূর করে ত্বককে আকর্ষণীয় ও উজ্জ্বল করতে এর জুড়ি নেই।

স্ট্রবেরি ও দই এর মিশ্রণে ফেসপ্যাক

তৈলাক্ত ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধিতে দই ও স্ট্রবেরির ফেসপ্যাক সহায়তা করে। এই প্যাকটি তৈরি করতে ৩টি স্ট্রবেরি, দুই চা চামচ দই এবং দুই চা চামচ মধু লাগবে।

Photo: stylecraze.com

প্রথমে স্ট্রবেরি চূর্ণ করে নিন। তারপর সবগুলো উপকরণ ভালো করে মিশিয়ে নিন। একটি ব্রাশের মাধ্যমে পুরো মুখে ফেসপ্যাকটি লাগান। নির্দিষ্ট সময় অপেক্ষা করে ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

এটি যেভাবে কাজ করে

দইয়ে ল্যাকটিক এসিড থাকায় এটি ব্যাকটেরিয়া দূর করে, ত্বকের ক্ষত, ব্রণ, ময়লা দূর করে। দই ত্বককে মসৃণ রাখে এবং ত্বকে পুষ্টি যোগায়। এই ফেসপ্যাকটি আপনার ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করবে এবং ত্বক সুন্দর রাখবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.