এবছর আসতে যাচ্ছে এমন সেরা গাড়ি (পর্ব-১)

২০১৯ সাল গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান এবং তাদের ক্রেতাদের নিকট একটি অন্যরকম বছর হতে যাচ্ছে কারণ প্রতিবছরের মত এবারও আসছে প্রতিটি গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠানের একের পর এক নতুন নতুন গাড়ি। আর প্রতিটি গাড়িতেই থাকছে একেকটি নতুন নতুন চমক ও প্রযুক্তির নিত্য নতুন ছোঁয়া। সাথে থাকছে প্রতিটি ক্রেতার পছন্দসই নানান বিষয়বস্তু এমনকি রঙের বিষয়টিও।

তাহলে চলুন জানি, এবছর আসতে যাওয়া সেরা গাড়িগুলোর ব্যাপারে কিছু তহ্য যাতে করে আপনার গাড়ি কেনার বিষয়টা কিছুটা হলেও সহজ হয় এবং সিদ্ধান্ত নিতে পারেন কোন গাড়িটি আপনার কেনা উচিত এবং কেন,

২০১৯ শ্রেভোলেট স্লিভার্দো

‘২০১৯ শ্রেভোলেট স্লিভার্দো; source: icdn2.digitaltrends.com’

রেটিং: ৮.৫/১০

ধরণ: ফুল সাইজ পিকআপ গাড়ি

যারা পিকআপ গাড়ি কিংবা বাসা বাড়িতে ব্যবহারের পাশাপাশি নিজেদের পারিবারিক কাজের জন্য ব্যবহার করতে চান এমন গাড়ি খুঁজছেন তাদের জন্য একটা দারুণ মানের গাড়ি হচ্ছে এটি। মালপত্র বোঝাই করার পরে আবার সিটের ব্যবস্থাও থাকছে এটিতে। ফোর্ড এফ-১৫০ মডেলের মত করেই অনেকটা ডিজাইনের দিক দিয়ে মিল রয়েছে এটির। দারুণ মানের কার্গো ব্যবস্থাসহ এটি আগের তুলনায় ৪৫০ পাউন্ড কম হালকা। আর রয়েছে ছয় রকমের ইঞ্জিন বাছাই করার সুযোগ যার মধ্যে রয়েছে টার্বোচার্জারযুক্ত ডিজেল ইঞ্জিন।

বিস্তারিত: শ্রেভোলেট স্লিভার্দো

২০১৯ ফোর্ড রেঞ্জার

‘২০১৯ ফোর্ড রেঞ্জার; source: www.rubbernews.com’

রেটিং: ৭.২/১০

ধরণ: কমপ্যাক্ট পিকআপ

বাসা বাড়ি এবং নিজেদের প্রয়োজন মেটাবে এমন গাড়ি যারা খুঁজছেন তাদের জন্য আরেকটি গাড়ি হচ্ছে এই ফোর্ড। ২০১১ সালের পর দীর্ঘ ৮ বছর পর এটি আবার বাজারে আসছে। এতে রয়েছে দীর্ঘস্থায়ীত্ব সম্পন্ন ষ্টীলের ফ্রেম, ২.৩ লিটার ইকোবুস্ট ইঞ্জিন এবং ১০ স্পীড অটোমেটিক ট্রান্সমিশন ব্যবস্থা। গাড়িটির দাম শুরু হবে ২৪৩০০ ডলার থেকে।

বিস্তারিত: ফোর্ড রেঞ্জার


২০১৯ সুবারু অ্যাসেন্ট

‘২০১৯ সুবারু অ্যাসেন্ট; source: cdn.motor1.com’

রেটিং: ৮.৫/১০

ধরণ: ৩ রো মিডসাইজ এসইউভি

২০১৮ সালের জুলাইতেই বাজারে এসেছে এটি তবে বিশ্বের অন্যান্য দেশের বাজারে যেতে যেতে ২০১৯ সাল লেগে যাবে কোম্পানির এই মডেলের গাড়িটির। ২০১৪ সালের পর ২০১৯ এ আবারো বাজার দখলের চেষ্টায় নেমেছে তারা। গাড়িটিতে রয়েছে সবগুলো চাকার চলনক্ষমতা, ২৬০ অশ্বক্ষমতা এবং চার সিলিন্ডার ও টার্বোচার্জারযুক্ত বক্সার ইঞ্জিন। আরো থাকছে ৬.৫ ইঞ্চি মাল্টিমিডিয়া সিস্টেম, অ্যাপেল কারপ্লে এবং অ্যান্ড্রুয়েড অটো ব্যবস্থা, ওয়াইফাই হটস্পট, ব্লাইন্ড স্পট মনিটরিং ব্যবস্থা, লেন পরিবর্তনের জন্য সাহায্যকারী ব্যবস্থা। গাড়িটির দাম শুরু হবে ৩১ হাজার ৯৯৫ ডলার থেকে।

বিস্তারিত: সুবারু অ্যাসেন্ট

২০১৯ ইনফিনিটি কিউএক্স৫০

‘২০১৯ ইনফিনিটি কিউএক্স৫০; source: townnews.com’

রেটিং: ৮.১/১০

ধরণ: বিলাসবহুল কমপ্যাক্ট এসইউভি

২০১৪ সালে ইনফিনিটি ইএক্স মডেলটির পরিবর্তে এই কিউএক্স৫০ মডলেটির যাত্রা শুরু হয়েছিল, এবছর সেই মডেলটিরই একটি নতুন সংস্করণ বাজারে আসতে যাচ্ছে। এর আগে ২০১৭ সালে কিউ৬০ এবং কিউএক্স৩০ মডেল দুটি বাজারে এসেছিল, কিন্তু এবার হেডলাইটে এক দারুণ মানের চমক নিয়ে এবং একদম নতুন ডিজাইনে বাজারে আসতে যাচ্ছে কিউএক্স৫০ মডেলটি। গাড়িটির আরেকটি বিশেষত্ব হচ্ছে এতে ব্যবহৃত ইঞ্জিনটির কম্প্রেশন অনুপাত পরিবর্তন করা সম্ভব অর্থাৎ পরিবেশ বা রাস্তাভেদে কম্প্রেশন অনুপাত পরিবর্তন হবে এবং আরো বেশি পরিমাণ দক্ষতার পরিচয় মিলবে। তাছাড়া গাড়িটিতে ব্যবহৃত হয়েছে উচ্চমানের ইনটেরিয়র তৈরির উপাদান যা যাত্রীদের এক দারুণ উপভোগ্য পরিবেশ দিবে প্রতিটি যাত্রার জন্যে আর থাকছে দারুণ আরামদায়ক আসন ব্যবস্থাও। গাড়িটির দাম শুরু হবে ৩৬ হাজার ৫৫০ ডলার থেকে।

বিস্তারিত: ইনফিনিটি কিউএক্স৫০


২০১৯ পোর্শে মিশন ই

‘২০১৯ পোর্শে মিশন ই; source: amazonaws.com’

রেটিং: জানানো হয়নি

ধরণ: ইলেকট্রিক স্পোর্ট সেদান

পোর্শে ৯১৯ হাইব্রিড মডেলটির মতই প্রযুক্তি ব্যবহার করে তৈরি করা হয়েছে এই মিশন ই মডেলটিকে। এটি পোর্শের তৈরি প্রথম ইলেকট্রিক গাড়ি হতে যাচ্ছে যা থেকে ৬০০ অশ্বক্ষমতা পাওয়া যাবে। ০-৬০ মাইল/ঘণ্টা গতিবেগ উঠতে সময় লাগবে মাত্র ৩.৫ সেকেন্ড। গাড়িটিতে থাকছে চোখের ট্র্যাকিং ব্যবস্থা যা গাড়ি চালানোর সময় ড্রাইভারের চোখের উপর নজর রাখবে এবং নিজে থেকেই ড্রাইভারকে নির্দেশনা দিবে সামনে কোন দিকে কিভাবে যেতে হবে, ডানে নাকি বামে যেতে হবে। গাড়িটির দাম শুরু হবে ৮৫ হাজার ডলার থেকে এবং বাজারে আসতে পারে ২০১৯ সালের শেষ নাগাদ।

বিস্তারিত: পোর্শে মিশন ই

২০১৯ জাগুয়ার আই পেস

‘জাগুয়ার আই পেস; source: cloudfront.net’

রেটিং: ৯.২/১০

ধরণ: বিলাসবহুল ইলেকট্রিক কমপ্যাক্ট এসইউভি

টেসলা মডেল এক্সকে টেক্কা দিতে পারবে এমনভাবেই তৈরি করা হয়েছে জাগুয়ার আই পেস মডেলটিকে যা জানানো হয়েছে কোম্পানিটির পক্ষ থেকে। তাদের আরেকটি মডেল এফ টাইপের মত অনেকটা ডিজাইনের মিল থাকলেও আই পেস মূলত স্পোর্টস ধাঁচের। আর এটি প্রতিটি চাকাতেই ৩৯৫ অশ্বক্ষমতা সরবরাহ করতে সক্ষম। গাড়িটির দাম শুরু হবে ৬৯ হাজার ৫০০ থেকে ৭০ হাজার ডলারে, আশা করা হচ্ছে গাড়িটি একবার চার্জেই ২৪০ মাইল পথ পাড়ি দিতে পারবে। ২০১৮ সালের শেষদিকে কিংবা ২০১৯ সালের শুরুতেই পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের বাজারে ক্রেতাদের জন্য পাওয়া যাবে এই গাড়িটি।

বিস্তারিত: জাগুয়ার আই পেস

২০১৯ টয়োটা সুপ্রা

‘২০১৯ টয়োটা সুপ্রা; source: evo.co.uk’

রেটিং: অজানা

দাম: জানানো হয়নি

২০০২ সালে প্রোডাকশন বন্ধ করে দেয়ার ১৭ বছর পরে এবছর বাজারে আসতে যাচ্ছে টয়োটার স্পোর্টস গাড়ি। তবে এটি তৈরির জন্য টয়োটার সাথে চুক্তি হয়েছে বিএমডব্লিউ নামক আরেকটি গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠানের, আর এই চুক্তি অনুযায়ী বিএমডব্লিউ পাচ্ছে আরেকটি নতুন গাড়ি জেড৪ মডেল।

কি কি থাকছে এই গাড়িতে সে সম্পর্কে সবটুকু ধারণা না পাওয়া গেলেও আশা করা যাচ্ছে জাপানভিত্তিক এই গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠানে এবার ছোঁয়া লাগবে বিএমডব্লিউ ইঞ্জিনের। সসুপ্রা প্রজেক্টের একন ইঞ্জিনিয়ার জানিয়েছেন, আগামীতে এটিকে হাইব্রিড মডেল হিসেবেও বাজারে পাওয়া যাবে। তবে গাড়িটির দাম এবং ২০১৯ সালের কবে নাগাদ বাজারে আসবে সে ব্যাপারে এখনও কিছু জানানো হয়নি।

বিস্তারিত: টয়োটা সুপ্রা

২০১৯ সালের নতুন আগত গাড়িগুলো নিয়ে আরো আয়োজন থাকছে দ্বিতীয় পর্বেও, সাথেই থাকুন।

Feature image source: Car brand names

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.