এবছরের সেরা বিলাসবহুল গাড়ির ব্র্যান্ড

'source: www.cstatic-images.com'

টাকা হয়তো আপনার অনেক আছে, নতুন গাড়ি কিনতেও চান, একটু শো অফ করে আশেপাশের মানুষকে নিজের টাকায় কেনা গাড়িটা দেখাতেও চান কিন্তু কোন ব্র্যান্ডের গাড়িটা কিনবেন নতুন বছরে সেটাই খুঁজে পাচ্ছেন না? তবে আজকের আয়োজন আপনার জন্যই। আজ থাকছে এবছরের সেরা বিলাসবহুল গাড়ির ব্র্যান্ডের নাম, তাদের বিবরণ এবং রেটিং। চলুন জানি এবছরে এখন পর্যন্ত বাজারে আসা সেরা বিলাসবহুল গাড়িগুলোর সম্পর্কে।

ইনফিনিটি

‘ইনফিনিটি; source: st.motortrend.com’

রেটিং: ৭.৮৬/১০

নিসান নামক জাপানভিত্তিক গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠানের সহযোগিতায় আরেকটি গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠেছে, সেটিই হচ্ছে ইনফিনিটি। বাইরের চাকচিক্য নয়, ভেতরেও আধুনিক ও উন্নতমানের প্রযুক্তি সমন্বয়ে গঠিত এই গাড়ি। তাদের নতুন বছরের নতুন মডেল হচ্ছে কিউএক্স৫০। যেটি মূলত এসইউভি মডেলের গাড়ি। এতে ব্যবহৃত হয়েছে নতুন ইঞ্জিন প্রযুক্তি (ভিসি-টার্বো)। যার ফলে বাতাসের সাথে জ্বালানির অনুপাতের মান বৃদ্ধি পাবে এবং জ্বালানির সাশ্রয় ঘটবে।

আলফা রোমিও

‘আলফা রোমিও; source: res.cloudinary.com’

রেটিং: ৭.৯৭/১০

ইতালির গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান হচ্ছে আলফা রোমিও। যারা উন্নতমানের রেসের জন্য গাড়ি তৈরি করে থাকে। বর্তমানে তাদের নতুন গাড়ির মডেল হচ্ছে ৪সি (রেসের জন্য) যেটি দুই দরজা বিশিষ্ট। এছাড়া গিউলিয়া (বিলাসবহুল ছোট সাইজের গাড়ি) এবং স্টিলভিও (বিলাসবহুল এসইউভি) মডেল বাজারে আসছে এবছরের শুরুতেই। তিনটি মডেলেই থাকছে দারুণ মানের হ্যান্ডেলিং নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা, শক্তিশালী ইঞ্জিন, ভুলবিহীন নিখুঁত ডিজাইনের কারুকাজ।

আপনার মনে হতে একটা ছোট কোম্পানির গাড়ি কেমন না কেমন হবে, কিন্তু বিশ্বাস রাখুন আর গাড়িতে বসে একবার চালু করে দেখুন, আপনার গাড়ি চালানোর অভিজ্ঞতাটাই পালটে যাবে আর ছোট কোম্পানি কী চমক রাখতে পারে তাদের গাড়ির জন্য সেটা জানতে পারবেন।

ল্যান্ড রোভার

‘ল্যান্ড রোভার; source: rackcdn.com’

রেটিং: ৮.০৩/১০

যেকোনো রাস্তার জন্য দারুণ পারফরমেন্স দেবে এবং একই সাথে বিলাসিতার নিদর্শন রাখবে এমন গাড়ির কথা যদি আপনি চিন্তা করে থাকেন তবে সেটি হচ্ছে এই ল্যান্ড রোভার। নতুন বছরে তাদের গাড়ির মডেল এসেছে ডিসকভারি, স্পোর্ট, ইভোক, ভেলার ডিসকভারি স্পোর্ট এই মডেলগুলো। এর মধ্যে ভেলার এবং স্পোর্ট মডেল দুটির মিনি ও বড় দুই সাইজেরই এসইউভি মডেল পাওয়া যাবে বাজারে। ফোর হুইল ড্রাইভের এই গাড়িতে থাকছে দারুণ মানের ইঞ্জিন পারফরমেন্স এবং উন্নত সব প্রযুক্তির ছোঁয়া।

লিংকন

‘লিংকন; source: www.lincoln.com’

রেটিং: ৮.০৩/১০

ফোর্ড নামক গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠানের অন্তর্ভুক্ত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের এই গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান হচ্ছে লিংকন। এতদিন তারা সাধারণ গাড়ি (সেদান) নির্মাণ করলেও বর্তমানে তারাও তৈরি করছে এসইউভি মডেলের গাড়ি।

এবছর লিংকনের সেরা গাড়ির তালিকায় নাম আছে লিংকন নেভিগেটরের, তারপরেই অবস্থান করছে নাউটিলাস এবং সম্পূর্ণ নতুন আঙ্গিকে তৈরি করা এমকেসি এসইউভি মডেলটি। শুধু ভালো মান কিংবা বিলাসিতা নয়, এবছর তাদের লক্ষ্য ছিল গাড়ির চড়ার আরামের ব্যাপারটি। আর লিংকন হচ্ছে এমন একটি গাড়ি যাতে বসে ড্রাইভ করার ওপর নাম নিজেকে শান্তির পরিবেশের মধ্যে নিমজ্জিত রাখা।

অ্যাকিউরা

‘অ্যাকিউরা; source: cdn.vox-cdn.com’

রেটিং: ৮.০৭/১০

হোন্ডার তৈরি গাড়িতে যদি চড়ার অভ্যাস থেকে থাকে কিংবা যদি চান হোন্ডার কোনো গাড়ি কিনতে তাহলে বলবো আরো কিছু টাকা জমিয়ে নিয়ে গ্যারেজে জায়গা দিন অ্যাকিউরা মডেলটিকে। কারণ এটি শুধু একটি গাড়ি না যেন এক গতিদানবের নাম যা কিনা অন্যান্য গতিদানবের তুলনায় একটু হলেও সস্তা।

এবছর তাদের বাজারে আসা মডেল দুটি হচ্ছে আরডিএক্স এবং এমডিএক্স। দুটি গাড়িই এসইউভি মডেলের। তাছাড়া আরো কয়েকটি মডেল রয়েছে যেমন : আইএলএক্স, টিএলএক্স এবং আরএলএক্স। যদিও এই মডেল তিনটি এসইউভি মডেলগুলোর মত সেরকম ভালো নয় তবে চাইলে আপনি অবশ্যই নিতে পারেন এগুলোর যেকোন একটিকেও।

জাগুয়ার

‘জাগুয়ার; source: mydriftfun.com’

রেটিং: ৮.০৮/১০

জাগুয়ার এমনই একটি গাড়ি যা কিনা একই সাথে বিলাসিতা এবং স্পোর্টস গাড়ি উভয়ের জন্য প্রযোজ্য। এটির নতুন বছরের সংস্করণ হচ্ছে এফ-টাইপ এবং এক্সই। আরো একটি সংস্করণ এসেছে তাদের যা কিনা ইলেকট্রিক মডেল, যার নাম আই-পেস, যা ২৪০ মাইল যেতে পারবে একবার ব্যাটারি চার্জেই। আর একটু ছোট মাপের গাড়ির জন্য আপনি বেছে নিতে পারেন ই-পেস মডেলটি। আর প্রতিটি গাড়িই আপনাকে দেবে দারুণ পারফরমেন্সের পাশাপাশি দারুণ মানের ড্রাইভিং অভিজ্ঞতা।

ক্যাডিলাক

‘ক্যাডিলাক; source: www.cadillac.com’

রেটিং: ৮.১৫/১০

ক্যাডিলাক, এক বিলাসবহুল গাড়ির নাম। যা কিনা আরেক বিলাসবহুল গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান রোলস রয়েসকে টেক্কা দেয়। নতুন বছরে তাদের সংস্করণ সিটি৬ মডেল, যা জ্বালানি সাশ্রয়ী হাইব্রিড মডেল এবং নিজে নিজে চলতে সক্ষম। এসইউভি ক্যাটাগরিতে জায়গা করেছে এক্সটি৪ এবং এক্সটি৫ মডেল। আরেকটি মডেল চাইলে কিনতে পারেন সেটি হচ্ছে এটিএস মডেল।

লেক্সাস

‘লেক্সাস; source: st.motortrend.com’

রেটিং: ৮.২৪/১০

টয়োটার অঙ্গপ্রতিষ্ঠান হিসেবে পরিচিত এই লেক্সাস, যারা তৈরি করে দারুণ মানের ও দারুণ পারফরমেন্সের সেদান এবং এসইউভি গাড়ি। বিলাসিতার জন্য বেছে নিতে পারেন আইএস, ইএস, জিএস এবং এলএস মডেল থেকে যেকোনো একটি। আর এসইউভির জন্য দেখতে পারেন ইউএক্স, এনএক্স, আরএক্স, জিএক্স এবং এলএক্স মডেলগুলো। এর মধ্যে থেকে কিছু কিছু মডেলের জন্য হাইব্রিড সংস্করণ বের করছে লেক্সাস।

ভলভো

‘ভলভো; source: icdn3.digitaltrends.com’

রেটিং: ৮.৩/১০

যদিও আমাদের দেশে ভলভো গাড়ি খুব একটা আপনার চোখে পড়বে না কিন্তু এসইউভির জগতে বাইরের দেশগুলোতে এক পরিচিত নাম ভলভো। সুইডেনের গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান এই ভলভো, যা এবার জিতেছে ডিজাইনের জন্য পুরষ্কার, দারুণ কোণা ডিজাইনের জন্য পুরষ্কার।

নতুন বছরে তারা নিয়ে এসেছে এস৬০ এবং এস৯০ মডেল, আরো রয়েছে ভি৬০ ও ভি৯০ মডেল। শুধু তাই নয়, আরো আছে এসইউভি মডেল এক্সসি৪০, এক্সসি ৬০ এবং এক্সসি৯০। তবে বর্তমানে অন্যান্য কোম্পানির মতো তারাও তাদের গাড়িগুলোকে হাইব্রিড করার জন্য নিয়োজিত আছে এবং কিছু কিছু মডেলে হাইব্রিড ব্যবস্থা যুক্ত করেছে।

মার্সিডিজ বেঞ্জ

‘মার্সিডিজ বেঞ্জ; source: images.hgmsites.net’

রেটিং: ৮.৩৭/১০

মার্সিডিজের কথা আর নতুন করে তো বলার কিছু নেই। পারফরমেন্স, রেসের জন্য গতি, স্পোর্টস গাড়ির মত ডিজাইন সব কিছুতেই সেরাদের সেরা এই মার্সিডিজ। নতুন বছরে মোটামুটি তাদের সব মডেলেরই নতুন সংস্করণ বাজারে এসেছে, যেমন : সিএলএস, সিএলএ, সি-ক্লাস, ই-ক্লাস, এস-ক্লাস এগুলোর প্রতিটিরই সেদান সংস্করণ এসেছে।

তাছাড়া এসইউভির জন্য জিএলএস, জিএলসি, জিএলই, জিএলএস এবং জি-ক্লাসের নতুন সংস্করণ এসেছে। আরো ভালো মানের জন্য এসেছে এসএলসি, এসএল এবং এএমজি-জিটি। তাছাড়া বাজারে আসার কথা রয়েছে এ-ক্লাসের মডেলেরও।

বিএমডব্লিউ

‘বিএমডব্লিউ; source: st.motortrend.com’

রেটিং: ৮.৪৮/১০

রেটিংয়ের দিক দিয়ে মার্সিডিজের দিক থেকে একটু এগিয়ে আছে বিএমডব্লিউ এবং তাদের মধ্যে সর্বদাই এরকম প্রতিযোগিতা লেগেই থাকে। নতুন বছরে তাদের ইলেকট্রিক ও হাইব্রিড সংস্করণ আই৩ এবং আই৮ বাজারে এসেছে। এছাড়া এসেছে ২ সিরিজ থেকে শুরু ৭ সিরিজ পর্যন্ত সবকয়টি মডেলের নতুন গাড়ি। আর এসইউভির জন্য এসেছে এক্স১ থেকে এক্স৭ পর্যন্ত মডেলের গাড়ি। আর চমক হিসেবে আসতে যাচ্ছে জেড৪ মডেলটি।

জেনেসিস

‘জেনেসিস; source: www.cstatic-images.com’

রেটিং: ৮.৫/১০

জেনেসিস হুন্দাই কোম্পানির সহাকারি প্রতিষ্ঠান হিসেবে গাড়ি তৈরি করে থাকে। যদিও নামটা তেমন একটা পরিচিত না সবার কাছে তবুও নতুন বছরে তারাও এনেছে কয়েকটি নতুন মডেলের গাড়ি, যেমন : জি৯০, জি৮০ এবং একদম নতুন মডেল জি৭০।

অডি

‘অডি; source: mediaservice.audi.com’

রেটিং: ৮.৫৯/১০

গাড়ির দুনিয়ায় আরেক বিশাল গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠানের নাম অডি, যারা শুধু এখন গাড়ি নির্মাণ করে না বরং লালন-পালন করে আরো কিছু গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠানকেও। নতুন বছরে তাদের পক্ষ থেকে থাকছে এ৫, কিউ৫ (এসইউভি), অলরোড ওয়েগন এবং এ৬ মডেল। তাছাড়া আসছে এ৩ মডেলেরও কিছু নতুন সংস্করণ।

পোর্শে

‘পোর্শে; source: st.motortrend.com’

রেটিং: ৮.৮১/১০

তালিকায় এটিই সবথেকে সেরা গাড়ি যেটি সবথেকে বেশি রেটিং পেয়েছে। জার্মান গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান এই পোর্শে যা সর্বদা লড়াই করে ল্যাম্বোরগিনি, ফেরারির সাথে। গতির সাথে রাজত্ব এই গাড়ির আর ডিজাইনের সাথে এক দারুণ সখ্যতা। নতুন বছরে তারা এনেছে ৯১১ মডেলের নতুন সংস্করণ, কেম্যান ও বক্সটারের নতুন মডেল, ম্যাকান ও কেয়েন (এসইউভি মডেল)। এছাড়া এসেছে প্যানামেরা এবং ৯১৮হাইপারকার নামক আরো দুটি মডেলের নতুন সংস্করণ।

এই ছিল এবছর বাজারে আসা এবং আসতে যাচ্ছে এমন গাড়িগুলোর তালিকা এবং তাদের সম্পর্কে কিছু তথ্য। আশা করা যায় এবার আপনি নিজেই বাছাই করে নিতে পারবেন আপনার পছন্দের গাড়িটিকে।

Image source: www.cstatic-images.com

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.